Business

আধার কার্ডের আদলে দেশ জুড়ে চালু PEN Number. এই কার্ডের কি সুবিধা? পশ্চিমবঙ্গে কিভাবে আবেদন করবেন?

এবারে আধার ও প্যান কার্ড নাম্বারের মতই PEN Number বা Permanent Education Number নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নিলো কেন্দ্রীয় সরকার। আমরা সকলেই জানি যে বর্তমানে সরকারি হোক বা বেসরকারি সকল প্রকারের কাজের জন্য আধার কার্ড (Aadhaar Card) এবং প্যান কার্ড (PAN Card) কতটা জরুরি ও গুরুত্বপূর্ণ দেশের সকল মানুষদের জন্য। আর এবারে এই দুই নথির মতই পড়ুয়াদের জন্য বিশেষ ভাবে তৈরি করা হবে এই পেন কার্ড (PEN Card).

PEN Number is Mandatory for Students?

বর্তমানে যেমন আধার কার্ড ছাড়া দেশের নাগরিক হিসেবে কোন সুবিধা মেলে না, জানা যাচ্ছে, তেমনি এরপর থেকে স্কুল, কলেজ বা অন্যান্য কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হতে গেলেই এই PEN Number for Students বা PEN Card বাধ্যতামূলক করা হবে। এই কার্ড ছাড়া পড়াশোনা করার অনুমতি দেওয়া হবে না দেশের কোন ছেলে মেয়েকে। সম্প্রতি Ministry of Education বা কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রণালয় নোটিশ জারি করে এই ব্যাপারটি সম্পর্কে সতর্ক করেছে। ছাত্র ছাত্রীরা (Students) কিভাবে এই কার্ড বানাবেন? পশ্চিমবঙ্গে এর শেষ তারিখ কবে! জেনে নিন।

PEN Number নিয়ে কি জানালো সরকার?

কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে দেশের যে কোন প্রান্তের স্কুল, কলেজ বা অন্যান্য ইনস্টিটিউশনে ভর্তি হওয়ার আগে আবেদনকারীদের এই কার্ড (PEN Number) দেখাতে হবে। তবেই ভর্তি নেওয়া হবে। এই কার্ড দেখিয়ে শিক্ষার্থী সহজেই দেশের যে কোন প্রান্তে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাইগ্রেশন করারও সুযোগ পাবে। এছাড়াও স্কলারশিপ, চাকরি অথবা বিভিন্ন সরকারি সুবিধা পেতেও এই কার্ডটি সাহায্য করবে।

How to Get PEN Number or PEN Card in India?

পেন কার্ড তৈরি জন্য বিভিন্ন রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর মারফত নির্দিষ্ট ওয়েবসাইট চালু করা হয়েছে। যারা পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষার্থী তাদের জন্য ‘বাংলার শিক্ষা‘ পোর্টালে এই সুবিধা উপলব্ধ করা হবে। ইতিমধ্যেই রাজ্যের প্রত্যেক ছাত্র ছাত্রীর আইডেন্টিটি নথিভুক্ত রয়েছে বাংলার শিক্ষা ওয়েবসাইটে। কিন্তু ছাত্র ছাত্রীদের তার অ্যাক্সেস দেওয়া হয় না। পেন কার্ড তৈরি হলে এই বাংলার শিক্ষা আইডেন্টিটিকেও তার সঙ্গে মার্জ করে দেওয়া হবে বলে জানা যাচ্ছে। ফলে তখন তার এক্সেস থাকবে ছাত্র ছাত্রীদের হাতে।

পেন কার্ড (PEN Number) তৈরির জন্য পড়ুয়াদের বিশেষ কোনো প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে না। বিভিন্ন স্কুলের প্রধান শিক্ষকদের মারফত ছাত্র ছাত্রীদের জন্য এই কার্ড তৈরি করা হবে। এই জন্য পশ্চিমবঙ্গ স্কুল শিক্ষা দপ্তর (West Bengal Education Department) জেলাভিত্তিক ভাবে স্কুল পরিদর্শকদের হাতে দায়িত্ব দিয়েছে। তাদের তত্ত্বাবধানেই প্রতিটি স্কুল কর্তৃপক্ষকে এই কাজ সম্পন্ন করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button